কওমি মাদ্রাসা থেকে কখনো জঙ্গি সৃষ্টি হয় না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, কওমি মাদ্রাসার ছাত্র-শিক্ষকেরা কোনো দিনই জঙ্গি হতে পারে না। কওমি মাদ্রাসা থেকে কখনো জঙ্গি সৃষ্টি হয় না।

আজ শুক্রবার সকালে রাজধানীর উত্তরা আজমপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে ‘সন্ত্রাস ও জঙ্গি দমন উপলক্ষে আলেম-ওলামা সমাবেশে’ বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এসব কথা বলেন। বাংলাদেশ ইউনাইটেড ইসলামী পার্টি ঢাকা মহানগর উত্তরের উদ্যোগে এই সমাবেশের আয়োজন করা হয়।

আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাহারা খাতুন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘টেকনাফ থেকে তেঁতুলিয়া পর্যন্ত দেশের মানুষ জঙ্গিদের বিরুদ্ধে ঘুরে দাঁড়িয়েছে। আমাদের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা জীবন বাজি রেখে জঙ্গি-সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে লড়ে যাচ্ছে।’ তিনি বলেন, ‘আমরা অসাম্প্রদায়িক ও ধর্মনিরপেক্ষ দেশের মানুষ। এ দেশে সবাই নিজ নিজ ধর্ম স্বাধীনভাবে পালন করছে।’
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ওলামাদের পথভ্রষ্ট করতে না পেরে জঙ্গিরা ইংলিশ মিডিয়ামের ছাত্রছাত্রীদের জঙ্গি তৎপরতায় ব্যবহার করছে।

সাহারা খাতুন বলেন, ইসলামের সঙ্গে জঙ্গি ও সন্ত্রাসীদের কোনো সম্পর্ক নেই। পৃথিবীতে মানবতা ও কল্যাণের একমাত্র ধর্ম হচ্ছে ইসলাম। তিনি আরও বলেন, যারা ইসলামের দোহাই দিয়ে নিরপরাধ লোকদের হত্যা করে, তারা কখনোই প্রকৃত মুসলমান হতে পারে না।

বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম বলেন, বাংলাদেশের মানুষ ধর্মপ্রাণ ও ধর্মভীরু, কিন্তু ধর্মান্ধ নয়। তিনি বলেন, জঙ্গিরা নিরপরাধ মানুষ হত্যা করে বিশ্বের সামনে মুসলমানদের অপমান করছে। ইসলামের অপব্যাখ্যা দিয়ে তারা সাধারণ মানুষকে জঙ্গিবাদে উসকে দিচ্ছে।

ইউনাইটেড ইসলামী পার্টির চেয়ারম্যান ইসমাইল হোসাইন এই সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *