জার্মানিতে ইসলাম বিদ্বেষী দলের কনফারেন্সে সংঘর্ষের আশঙ্কা

জার্মানির কোলনে অনুষ্ঠিতব্য উগ্র-ডানপন্থী ও ইসলাম বিদ্বেষী দল অল্টারনেটিভ ফুয়ের ডয়েচল্যান্ড (এএফডি)-এর কনফারেন্সে সংঘর্ষের আশঙ্কা করা হচ্ছে। বামপন্থীরা আগেই ওই কনফারেন্স প্রতিহত করার ঘোষণা দিয়েছেন। সংঘর্ষের আশঙ্কায় কনফারেন্স এলাকায় কয়েক হাজার পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

এএফডি জানিয়েছে, জার্মানির আগামী সাধারণ নির্বাচনের আগে নতুন নেতৃত্ব বাছাইয়ের জন্য তারা কোলন কনফারেন্সের আয়োজন করেছে। এএফডি-র নেতা ফাউক পেট্রি চলতি সপ্তাহেই জানিয়েছিলেন, তিনি নির্বাচনে নেতৃত্ব দিতে পারবেন না।

শনিবার কনফারেন্স স্থলের কাছে প্রতিবাদকারীদের জমায়েত ক্রমেই বাড়ছে। তাদের হাতে ‘নাৎসি ঠেকাও’ লেখা পোস্টার দেখা গেছে।

পুলিশ জানিয়েছে, তারা ৫০ হাজার মানুষের জমায়েত আশা করছে। এখন পর্যন্ত অন্তত চার হাজার পুলিশ সদস্যকে ওই স্থানে মোতায়েন করা হয়েছে।

কোলনের পুলিশ প্রধান জুয়েরগেন ম্যাথিয়াস জানিয়েছেন, ‘এখানে হাজার হাজার বামপন্থী প্রতিবাদকারী রয়েছেন। তাদের মধ্যে কয়েকশ’ সহিংস বিক্ষোভকারীও থাকতে পারে।’

পুলিশ হেফাজতে এএফডি-র সদস্যদের নিয়ে যাওয়ার সময় কয়েকজন বিক্ষোভকারী হামলা চালালে এক পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। এক বিক্ষোভকারীকে আটক করা হয়েছে।

জার্মান সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, রাইন নদীর অপরদিকে প্রায় একশ’ মানুষ পুলিশ লাইনে অতিক্রম করার চেষ্টা করে।

যে হোটেলে কনফারেন্স হবে, তার বাইরে ৫০-৬০ জন মানুষ সাইকেলের চেইন দিয়ে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করেন। তবে পুলিশ যে বাধা গুড়িয়ে দিয়েছে।

এএফডি-র গত বছরের স্টুটগার্ট কনফারেন্সে বিক্ষোভের সময় কয়েকশ’ মানুষকে আটক করা হয়েছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *