জয়পুরহাটের উন্নয়নে কাজ করতে চাই -এমপি স্বপন

জয়পুরহাট-২ আসনের সংসদ সদস্য আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন বলেছেন, ক্ষেতলাল তথা জয়পুরহাটের উন্নয়নে আমি মানুষের পাশে থেকে কাজ করতে চাই। এজন্য সকলের সহযোগিতা কামনা করে তিনি বলেন,এলাকার উন্নয়ন ছাড়া মানুষের সমর্থন পাওয়া যায় না। তার বিরুদ্ধে নিজ দলের ষড়যন্ত্রকারীদের ইংগিত করে বলেন, আমি সরকারি রাস্তার গাছ কেটে নিই না বা নিয়োগ বাণিজ্যের অভিযোগ আমার বিরুদ্ধে নেই, ক্ষমতার দম্ভ আমি কখনও দেখাইনি, যারা এসব করেন তারাই আমার সমালোচনা করেন এবং তারাই বেশী ক্ষতিগ্রন্থ হয়েছে বরং জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে অধিক সম্মানিত করে তিন তিন বার দলের সাংগঠনিক সম্পাদক বানিয়েছেন। সব সময় ভাল কাজে,ভাল মানুষদের পাশে থাকার জন্য তিনি এলাকাবাসীর প্রতি উদাত্ত আহবান জানান।

 পরে তিনি ক্ষেতলাল উপজেলা আওয়ামীলীগের প্রয়াত সভাপতি খলিলুর রহমানের নামে ক্ষেতলাল ডায়াবেটিক সমিতি উৎসর্গ করেন। এর আগে তিনি ক্ষেতলাল উপজেলা পরিষদ চত্বরে উপজেলা শিশুপার্কের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন। গতকাল শনিবার বিকেল পাঁচটায় ক্ষেতলালের নব নির্মিত ডায়াবেটিক সমিতির উদ্বোধনী শেষে হাসপাতাল চত্বরে আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

ক্ষেতলাল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সমিতির সভাপতি মো. কামরুজ্জামানের সভাপতিত্বে ওই জনসভায় বক্তব্য রাখেন জয়পুরহাট জেলা সিভিল সার্জন ডা. হাবিবুল আহসান তালুকদার,সমিতির সাধারণ সম্পাদক আলমগীর চৌধূরী, আওয়ামীলীগ নেতা আব্দুল মজিদ মোল্লা, সিরাজুল ইসলাম বুলু, ভাইস চেয়ারম্যান মোস্তাকিম মন্ডল প্রমূখ।

বৃটিশ আমলে নির্মাণ করা ক্ষেতলাল হাসপাতালের পরিত্যক্ত লাল ভবন এক সময় মাদকের আখড়া ছিল। জঙ্গলে পরিপূর্ণ ভবন এলাকায় সাধারণ মানুষদের কেউ ফিরে তাকাতো না। এখন সেই ভবন ডায়াবেটিক সমিতির জন্য ঘষে মেজে করা হয়েছে ঝকঝকে, দৃষ্টিনন্দন। পুরো ভবনকে সংস্কার করার পর এর চারিদিকে বাগান নির্মাণ ছাড়াও রোগীদের বিশ্রামের জন্য নির্মাণ করা হয়েছে একটি গোল ঘর। দীর্ঘ দিন থেকে পরিত্যক্ত ভবনটিতে মানুষ চিকিৎসা সেবা পাবেন এটা যেন ভাবতেই পারছেন ক্ষেতলাল বাসী। মাদকের আখড়ায় মানুষের সেবা দেওয়ার এই উদ্যোগকে স্বাগত জানান ক্ষেতলালের সর্বস্তরের মানুষ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *