আন্তর্জাতিক

সুইডেনের রাজকুমারী শুনলেন বাস্তুচ্যুত জনগোষ্ঠীর লড়াইয়ের কথা

ডেস্ক রিপোর্ট: সুইডেনের রাজকুমারী ক্রাউন প্রিন্সেস ভিক্টোরিয়া বাংলাদেশে তার চার দিনের সফরে মঙ্গলবার (১৯ মার্চ) চট্টগ্রামের কালুরঘাটে ইউএনডিপির প্রকল্প পরিদর্শন করেন। সংস্থাটির শুভেচ্ছাদূত হিসেবে তিনি এই সফর করেছেন। প্রিন্সেস জলবায়ু অভিঘাতের ফলে বাস্তুচ্যুত জনগোষ্ঠীর জীবনযাত্রার মান পরিদর্শন করেন এবং স্থানীয় সফল নারীদের সঙ্গে কথা বলেন।

জাতীয় নগর দারিদ্র হ্রাসকরণ কর্মসূচির আওতায় চট্টগ্রাম নগরীর কালুরঘাটের দক্ষিণ জেলেপাড়া ওয়ার্ডে এলজিডি, যুক্তরাজ্যের ফরেন কমনওয়েলথ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অফিস (এফসিডিও) ও ইউএনডিপির অর্থায়নে এবং চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের সহায়তায় জলবায়ু সহিষ্ণু পৌর অবকাঠামো তহবিলের (সিআরএমআইএফ) মাধ্যমে বিভিন্ন জলবায়ু সহিষ্ণু অবকাঠামো নির্মিত হয়। এ প্রকল্পের মধ্যে রয়েছে ১১৫.৮৫ মিটার রিটেইনিং ওয়াল, ১১৫.৮৫ মিটার ভরাট রাস্তাসহ সিসি রাস্তা, ৪.৫৭ মিটার স্লাইস গেট, ১৫০টি বৃক্ষরোপন, ৪৮.৭৮ মিটার ফুটপাত ও ৬.১০ মিটার সিঁড়ি।

প্রকল্পের মোট ব্যয় ৮২ লাখ ৪৮ হাজার ৬৫৮ টাকা যার মধ্যে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের অনুদান ৭ লাখ ৫০ হাজার টাকা এবং ইউএনডিপির অর্থায়ন ৭৪ লাখ ৯৮ হাজার ৬৫৮ টাকা। প্রকল্পগুলোর মধ্যে আরো রয়েছে জলবায়ু সহিষ্ণু বাঁধ, কমিউনিটি ল্যাট্রিন, প্লাস্টিক বর্জ্য থেকে তৈরি পেইভমেন্ট টাইলস দ্বারা নির্মাণাধীন ফুটপাত এবং কম খরচে জলবায়ু সহিষ্ণু ফেরো সিমেন্ট দিয়ে তৈরি ঘর। জলবায়ু অভিঘাতের ফলে বাস্তুচ্যুত জনগোষ্ঠীদের জীবনযাত্রার মান উন্নয়নে বিভিন্ন ভাগে প্রকল্পের মাধ্যমে অনুদান দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে ব্যবসায়ের জন্য ২২ জন, শিক্ষা অনুদানের জন্য ১৪ জন, দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণে ১১ জন এবং পুষ্টি অনুদানে ১৩ জন উপকারভোগী রয়েছে।

প্রকল্পের আওতায় অন্তর্ভুক্ত স্থানীয় সফল নারীরা তাদের সফলতার কথা প্রিন্সেসকে শোনান। প্রিন্সেস তাদের কথা মনোযোগ সহকারে শুনেন এবং উপকারভোগীদের সফলতার প্রশংসা করেন। তিনি তাদের লড়াকু মনোভাবেরও ভূয়সী প্রশংসা করেন। পরিবেশ, বন ও জলবায়ু বিষয়ক মন্ত্রী সাবের হোসেন চৌধুরী, চট্টগ্রাম সিটি করেপোরেশনের মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা রেজাউল করিম চৌধুরী, ইউএনডিপির আন্তর্জাতিক প্রকল্প ব্যবস্থাপক যোগেশ প্রাধানং এসময় উপস্থিত ছিলেন।

বিকেলে প্রিন্সেস নগরীর এশিয়ান ইউনিভার্সিটি ফর উইমেন পরিদর্শনে যান। প্রিন্সেস সেখানে ইউএনডিপি কর্তৃক সমর্থিত শিক্ষার্থীদের ‘ইনোভেটিভ ট্রেনিং কোর্স’সহ বিভিন্ন কার্যক্রম প্রত্যক্ষ করেন এবং তাদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন। ইউনিভার্সিটিতে তিনি তাঁর নামে নামকরণকৃত ‘‘ক্রাউন প্রিন্সেস ভিক্টোরিয়া রুম’’ উদ্বোধন করেন। এসময় পরিবেশ, বন ও জলবায়ু বিষয়ক মন্ত্রী সাবের হোসেন চৌধুরী, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, ইউনিভার্সিটির উপাচার্য রুবানা হক, জেলা প্রশাসক আবুল বাসার মোহাম্মদ ফখরুজ্জামান এবং ইউনিভার্সিটির শিক্ষকেরা উপস্থিত ছিলেন। পরে প্রিন্সেস শিক্ষার্থীদের সঙ্গে ইফতারে অংশ নেন।

সংবাদটি প্রথম প্রকাশিত হয় বার্তা ২৪-এ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *