পাঁচবিবি সীমান্তে ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে খাস জমি (ডোবা) যবর দখলের অভিযোগ

জয়পুরহাটের খবর

মো.বাবুল হোসেন, পাঁচবিবি (জয়পুরহাট) প্রতিনিধি : জয়পুরহাটের পাঁচবিবি সীমান্তের রামভদ্রপুর গ্রামে ইউপি সদস্য আতাউর রহমানের বিরুদ্ধে সরকারী খাস সম্পত্তির ডোবা যবর দখলের অভিযোগ উঠেছে।

ভুক্তভোগী গ্রামবাসীর পক্ষে ইউনুছ আলী,নজরুল ইসলাম ও আফজাল হোসেন জানান, আমাদের বাপ দাদার আমল থেকে ১২ শতকের এই খাস ডোবার পানি দিয়ে আশেপাশের সকল ফসলী জমিতে ফসল ফলানো হতো। পাটের মৌসুমে কৃষকদের সমস্ত পাট এই ডোবাতে জাগ দেওয়া হয়। সরকারী এই ডোবায় তাদের একমাত্র পানি সেচের অবলম্বন।

ইদানিং ইউপি সদস্য আতাউর রহমান ঐ খাস ডোবার পাশে আবাদী জমি খনন করে মাছ চাষ করছে। এখন ক্ষমতার বলে আমাদের চাষাবাদের একমাত্র ডোবাটি তার পুকুরের সাথে ঘিরে নিয়েছে। আমরা এর প্রতিবাদ করলে ইউপি সদস্য আতাউর রহমান আমাদের বিভিন্ন প্রকার ভয়-ভীতি দেখাচ্ছে এবং মামলা দিয়ে ফাসিয়ে দিবে।

এমনতাবস্থায় ২১ জন গ্রামবাসীর সাক্ষরীত খাস সম্পত্তি যবর দখলের অভিযোগটি পাঁচবিবি উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট প্রদান করি। পরে উপজেলার ১নং বাগজানা ইউনিয়নের চেয়াম্যানের নিকট খাস জমি সংক্রান্ত ন্যায় বিচার প্রসঙ্গে আবেদন করি।

এ বিষয়ে ইউপি সদস্য আতাউর রহমান বলেন সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাব দিতে ইচ্ছুক নই। তিনি সকল প্রশ্ন এড়িয়ে যান এবং বাদী পক্ষদের গালি-গালাজ ও প্রাণনাশের হুমকি দেন।

১নং বাগজানা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নাজমুল হক বলেন, আমার ইউনিয়নের ইউপি সদস্য আতাউর রহমানের বিরুদ্ধে খাস জমি (ডোবা) অবৈধ দখলের অভিযোগ গ্রামবাসী করেছে। আমি অভিযোগটি তদন্ত করে দেখবো এবং ন্যায় বিচার করবো।

পাঁচবিবি উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাজিবুল আলম জানান,অভিযোগ পত্র হাতে পেয়েছি। প্রতিবেদনের জন্য ভূমি অফিসে পাঠানো হয়েছে, প্রতিবেদন অনুযায়ী সকল প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।