সারাদেশ

খৎনার সময় শিশুর অতিরিক্ত রক্তপাত, পালালো ডাক্তার

ডেস্ক রিপোর্ট: যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস-২০২৪ পালন করেছে ব্যাংককে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাস। বুধবার (২১ ফেব্রুয়ারি) দূতাবাস প্রাঙ্গনে বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে দিবসটি পালন করা হয়।

দিনের শুরুতে রাষ্ট্রদূত মো. আব্দুল হাই আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত করেন। এরপর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তাঁর পরিবারের অন্যান্য শহিদ সদস্য, ভাষা শহিদ ও শহিদ বীর মুক্তিযোদ্ধাদের আত্মার শান্তি কামনা এবং দেশের অব্যাহত শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়। দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন দূতাবাসের কাউন্সেলর (শ্রম) ফাহাদ পারভেজ বসুনীয়া। এরপর রাষ্ট্রদূত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

অনুষ্ঠানে প্রবাসী বাংলাদেশিরা উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে ভাষা শহিদ ও শহিদ বীর মুক্তিযোদ্ধাদের আত্মার শান্তি কামনা করে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। দিবসটি উপলক্ষ্যে রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বাণী পাঠ করেন যথাক্রমে দূতাবাসের মিনিস্টার (রাজনৈতিক) ও মিশন উপপ্রধান মালেকা পারভীন, মিনিস্টার (কনস্যুলার) হাসনাত আহমেদ এবং কাউন্সেলর (ইকনোমিক) সারোয়ার আহমেদ সালেহীন।

অনুষ্ঠানে মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস এর উপর নির্মিত একটি ভিডিও চিত্র প্রদর্শন করা হয়। 

রাষ্ট্রদূত মো. আব্দুল হাই তার বক্তব্যে ভাষা শহিদদের আত্মত্যাগ, ভাষা দিবস পালনের উদ্দেশ্য, বাঙালি জাতির অধিকার আদায়ের আন্দোলন, ইউনেস্কো কর্তৃক ২১ ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস এর স্বীকৃতি, ভাষা আন্দোলনে বঙ্গবন্ধুর অতুলনীয় অবদান ইত্যাদি বিষয় তুলে ধরেন এবং প্রবাসী বাংলাদেশি নব প্রজন্মের মাঝে মাতৃভাষা বাংলা চর্চা করার আহবান জানান। এছাড়াও তিনি বাংলাদেশের বিপুল জনগোষ্ঠীর কথা চিন্তা করে বৈদেশিক কর্মসংস্থানের জন্য অন্যান্য বিদেশি ভাষায় দক্ষতা অর্জনের ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

অনুষ্ঠানে ‘ভাষা আন্দোলনে বঙ্গবন্ধু’ শীর্ষক আলোচনায় মালেকা পারভীন ভাষা আন্দোলনের প্রেক্ষাপট, বাঙালি জনগণের বিরুদ্ধে তৎকালীন পাকিস্তানি পশ্চিমা শাষক গোষ্ঠীর বৈষম্য, ভাষা আন্দোলনে তরুণ ছাত্রনেতা শেখ মুজিবের অনন্য অবদান, ভাষা আন্দোলনে জড়িত থাকার কারণে বঙ্গবন্ধুর কারাভোগ ইত্যাদি বিষয় তুলে ধরেন। 

এছাড়া, থাইল্যান্ড আওয়ামী লীগ এর সাধারণ সম্পাদক জনাব নেয়ামত আলী তালুকদার বাংলাদেশ কমিউনিটির পক্ষ হতে আলোচনাপর্বে অংশগ্রহণ করেন এবং ভাষা আন্দোলনের বিভিন্ন পর্যায়ে বঙ্গবন্ধুর অসামান্য অবদানের ওপর আলোকপাত করেন। 

এর আগে গত ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ তারিখে বাংলাদেশ দূতাবাস, ব্যাংকক কর্তৃক মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ২০২৪ উপলক্ষ্যে প্রবাসী শিশু কিশোরদের জন্য চিত্রাংকন ও বাংলা বর্ণমালা/শব্দ লিখন প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। এতে থাইল্যান্ডে অবস্থানরত প্রবাসী বাংলাদেশি শিশু কিশোররা স্বত:স্ফূর্তভাবে অংশগ্রহণ করে। পরবর্তীতে প্রতিযোগিতায় প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থান অর্জনকারীসহ প্রত্যেক অংশগ্রহণকারী শিশুকে পুরস্কার প্রদান করা হয়। 

অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন দূতাবাসের কাউন্সেলর ও দূতালয় প্রধান মাসূমুর রহমান।

সংবাদটি প্রথম প্রকাশিত হয় বার্তা ২৪-এ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *