আন্তর্জাতিক

রুশ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের ৫০০টিরও বেশি নিষেধাজ্ঞা

ডেস্ক রিপোর্ট: দুই বছর আগে ইউক্রেন আক্রমণ এবং রাশিয়ার বিরোধী নেতা আলেক্সি নাভালনির কারাগারে মৃত্যুর প্রতিক্রিয়ায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বেশি বিভিন্ন রুশ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের উপর ৫০০টিরও বেশি নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে যাচ্ছে বলে জানিয়েছে আল জাজিরা।

রাশিয়া ইউক্রেন আক্রমণ করার পর থেকে এই নিষেধাজ্ঞাগুলো সবচেয়ে বড় আকারের বলে জানিয়েছে মার্কিন বিচার বিভাগ।

মার্কিন বিচার বিভাগ বৃহস্পতিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) ঘোষণা করেছে যে, এবারের নিষেধাজ্ঞার বেশিরভাগই রাশিয়ার ব্যবসায়ীদের লক্ষ্য করে, যার মধ্যে দেশটির রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন ভিটিবি ব্যাংকের প্রধানও রয়েছেন।

এ ছাড়াও ওই নিষেধাজ্ঞা তালিকায় রয়েছেন নাভালনি যেখানে মারা গিয়েছিলেন সেই কারাগারের তত্ত্বাবধানে থাকা ছয়জন কর্মকর্তা।

রাশিয়ার ওপর নতুন ওই অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা শুক্রবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) স্টেট অফ স্টেট এবং ট্রেজারি দ্বারা ঘোষণা করা হবে বলে জানা গেছে।

এদিকে হোয়াইট হাউস চলতি সপ্তাহে বলেছিল, তারা রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সমালোচক নাভালনির মৃত্যুর পরে বড় শাস্তির প্রস্তুতি নিচ্ছে।

অন্যদিকে, মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বৃহস্পতিবার ক্যালিফোর্নিয়ায় নাভালনির স্ত্রী ইউলিয়া এবং কন্যা দাশার সঙ্গে দেখা করার পর বলেছেন, ‘আমরা আগামীকাল পুতিনের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা ঘোষণা করতে যাচ্ছি, যিনি ওই মৃত্যুর জন্য দায়ী।’

ক্রেমলিন অস্বীকার করেছে যে নাভালনির মৃত্যুর পেছনে পুতিনের হাত ছিল। এমন অভিযোগের জন্য পশ্চিমাদের নিন্দাও করেছে ক্রেমলিন।

ডেপুটি মার্কিন ট্রেজারি সেক্রেটারি ওয়ালি অ্যাডেইমো বৃহস্পতিবার বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেছেন, অন্যান্য দেশগুলোর সঙ্গে অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে নিষেধাজ্ঞাগুলো নেওয়া হবে, যারা ইউক্রেনের বিরুদ্ধে তার যুদ্ধের জন্য রাশিয়ার উপর চাপ বজায় রাখতে চাইছে।

উল্লেখ্য, রাশিয়াকে বৈশ্বিক অর্থনীতি থেকে বিচ্ছিন্ন করার প্রচেষ্টায় ওয়াশিংটন তার ইউরোপীয় মিত্রদের সঙ্গে সমন্বয় করছে।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের সদস্যরা চলতি সপ্তাহে রাশিয়ার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞার ১৩তম প্যাকেজ অনুমোদন করেছে।

সংবাদটি প্রথম প্রকাশিত হয় বার্তা ২৪-এ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *